উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা

মতুয়া মহাসংঘের উপদেষ্টা পদ নিয়ে শুরু হল বিতর্ক

উত্তর ২৪ পরগনাঃ বীণাপাণি দেবীর মৃত্যুর পর ক্ষমতার দখলদারি নিয়ে মমতাবালাদেবী ও মঞ্জুলকৃষ্ণ পরিবারের দ্বন্দ্ব চলে এসেছে জনসমক্ষে। এবার মতুয়া মহাসংঘের উপদেষ্টা পদ নিয়ে শুরু হল বিতর্ক। দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ল দুপক্ষ। মতুয়াদের নিজস্ব নিয়মনীতি অনুযায়ী প্রধান উপদেষ্টা পদ শূন্য রাখা যায় না। বড়মা বীণাপানি ঠাকুর ছিলেন মতুয়া মহাসংঘের প্রধান উপদেষ্টা। তাই তাঁর শেষকৃত্যের পরে অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসংঘের সভাপতি নন্দদুলাল মহন্ত সাংবাদিক বৈঠক করে প্রধান উপদেষ্টা পদে প্রয়াত কপিলকৃষ্ণ ঠাকুরের দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী মমতাবালা ঠাকুরের নাম ঘোষণা করেন। যদিও মহাসংঘের এই সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ বড়মার নাতি শান্তনু ঠাকুর। শুক্রবার তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দাবি করেন রীতি অনুযায়ী পরিবারের বড় বউ প্রধান উপদেষ্টা পদ পাওয়ার অধিকারী। তাই প্রয়াত কপিলকৃষ্ণ ঠাকুরের প্রথম স্ত্রী অমলা ঠাকুরই মতুয়া মহাসংঘের প্রধান উপদেষ্টা পদের আসল দাবিদার। আর মতুয়া ভক্তরাও চাইছেন না তাদের উপদেষ্টা পদে কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব থাকুন। তাই তারা অমলা ঠাকুরকে প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। অন্যদিকে প্রধান উপদেষ্টা পদে মমতাবালাদেবীর নাম ঘোষণাকে মোটেই আমল দিতে রাজি নন শান্তনুবাবু। তাঁর মতে ওসব মিথ্যে প্রচার। ওই ঘোষণার কোনও মূল্য নেই। একমাত্র ঠাকুর পরিবার ও ভক্তসংঘ মিলিতভাবে মতুয়া মহাসংঘের উপদেষ্টা পদের নাম ঘোষণার অধিকারী। ‘

ফলে মমতাবালা নাকি অমলা, মতুয়া মহাসংঘের নতুন উপদেষ্টা কে তা নিয়ে বিতর্ক রয়েই রইল।

  • 4
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *