উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা

তৃণমূল বিধায়কের ডাকা সালিশি সভায় ছুরিকাহত দলীয় কর্মী

উত্তর দিনাজপুরঃ চোপড়ায় তৃণমূল বিধায়কের উপস্থিতিতে সালিশি সভায় ছুরিকাহত তৃণমূল কর্মী। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। যদিও তৃণমূলের অভিযোগ সিপিএম কর্মীরা ছুরি নিয়ে হামলা চালিয়েছে।

জানা গিয়েছে, রবিবার সন্ধ্যায় একটি জমি নিয়ে বিবাদারে জেরে সিপিএম এবং তৃণমূলের কর্মীদের নিয়ে সালিশি সভা বসেছিল চোপড়ার বিধায়ক হামিদুল রহমানের বাড়িতে। বৈঠক শুরু হতেই দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। অভিযোগ সেই সময় সিপিএমের খুরশেদ আলী বিধায়ক হামিদুল রহমানের সামনেই তৃণমূলের হানিফ আলম ওরফে রাজুকে ছুরি মারে। ঘটনায় জখম তৃণমূল কর্মী রাজুকে প্রথমে চোপড়ার দলুয়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হলে পরে শারীরিক অবস্থার অবনতির কারণে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। অন্যদিকে তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ হাস্যকর ও শিশুশুলভ বলে উড়িয়ে দিয়েছে স্থানীয় সিপিএম নেতৃত্ব। স্থানীয় সিপিএম নেতা বিকাশ দাসের দাবি তৃণমূল বিধায়কের বাড়িতে ডাকা সালিশি সভাতে সিপিএম কর্মীরা উপস্থিত থাকতে পারে না। তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দলের জেরে নিজেরাই নিজেদের লোককে ছুরি মেরে সিপিএমের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হচ্ছে বলে দাবি তাঁর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *