রাজ্য

‘দিদিকে বলো’-র প্রচারে সরগরম তৃণমূলের অন্দরমহল

‘দিদিকে বলো’  কর্মসূচিকে  বাস্তবরূপ  দিতে  জেলা  জুড়ে  শুরু  হয়েছে  তৃণমূলের  নেতা  কর্মীদের  তৎপরতা । বুধবার লাউদোহার সরপি মোড় সংলগ্ন  তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে পশ্চিম বর্ধমান জেলার সভাপতি তথা পান্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি এক সাংবাদিক সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী জনসংযোগ যাত্রার জন্য যে ডিজিট্যাল অ্যাপ চালু করেছেন  সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানালেন । কিভাবে সাধারণ মানুষ তাদের এলাকার অভাব অভিযোগের কথা সরাসরি দিদির কাছে পৌঁছে দেবেন, এছাড়াও তিনি পথ চলতি সাধারণ মানুষ থেকে স্কুলের পড়ুয়া পর্যন্ত সকলকে  ‘দিদিকে বলো’-র  কার্ড বিলি করলেন । সেই কার্ডে দেওয়া ফোন নম্বরে  কিভাবে সরাসরি দিদির কাছে বার্তা পৌঁছানো যাবে তা জানান তিনি ।

‘দিদিকে বলো’  কর্মসূচিতে  সামিল  হলেন  পূর্ব  বর্ধমানের  রায়নার  বিধায়ক  নেপাল ঘোড়ুই । বুধবার  রায়নার  বেলসরে  তৃণমূল  কংগ্রেস  কার্যালয়ে   সাংবাদিক  বৈঠক করে  ‘দিদিকে বলো’  কর্মসূচির  কথা  ঘোষণা  করেন  রায়নার  বিধায়ক ।অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রীর  ‘দিদিকে বলো’  কর্মসূচিতে  পথে  নেমে  জনসংযোগের  কাজ করলেন  নৈহাটির  বিধায়ক  পার্থ  ভৌমিক ।  সকলের  হাতে  ‘দিদিকে বলো’  ফোন নম্বর  সম্বলিত  একটি  কার্ড  তুলে  দিয়ে  যে  কোন  অভিযোগ  জানাতে  মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন  করার  আবেদন  জানান  তিনি ।

সুন্দরবনের  হিঙ্গলগঞ্জ- এর  বিধায়ক  দেবেশ  মণ্ডলের  উদ্যোগে  হিঙ্গলগঞ্জ  এলাকায় সাংবাদিক  সম্মেলনে  প্রত্যন্ত  সুন্দরবনের   আদিবাসী  বাসিন্দা  থেকে  মৎস্যজীবী  সহ  পথ  চলতি  মানুষ সকলের জন্য  ‘দিদিকে বলো’  মোবাইল  নাম্বার  ও  ওয়েবসাইট  খুলে  দেওয়া  হলো ।  এই  উদ্যোগ  ব্যাপক  সাড়া  ফেলেছে  হিঙ্গলগঞ্জে । এদিকে সন্দেশখালি  বিধায়ক  সুকুমার  মাহাতো, মিনাখাঁ  বিধায়ক  ঊষা  রানী  মন্ডল, হাড়োয়া  বিধায়ক  হাজী  নুরুল  ইসলাম  সহ  স্থানীয়  তৃণমূল  নেতৃত্ব  ‘দিদিকে বলো’-র  ফোন  নম্বর  ও  ওয়েবসাইট খুলে দিলেন সেখানকার মানুষদের জন্য ।  এই  উদ্যোগকে  রীতিমতো  সাধুবাদ  জানিয়েছেন স্থানীয়রা ।

পাশাপাশি বুধবার  বিকেলে  নদিয়া  রানাঘাট  তৃণমূল  বিনয়  ভবন   পার্টি  অফিসে ‘দিদিকে বলো’  কর্মসূচির প্রচার করলেন  তৃণমূল  সভাপতি  শংকর  সিং  ও  রানাঘাটের  পৌরপতি  পার্থসারথি  চ্যাটার্জী,  পঞ্চায়েত  সমিতির  সভাপতি  তাপস  ঘোষ,  শহর  তৃণমূলের  সভাপতি  অসিত  দত্ত ও  বিভিন্ন  ওয়ার্ডের  কাউন্সিলর  সহ  স্থানীয়  নেতৃত্ব,  ও কর্মীবৃন্দ । ‘দিদিকে বলো’  প্রচারে  নামলেন মুর্শিদাবাদ  বেলডাঙা  ও  রেজিনগর  বিধানসভার  তৃনমুল  নেতৃত্ব  ।  এদিন  ‘দিদিকে বলো’  হ্যান্ড  কার্ড  নিয়ে  পথ  চলতি  মানুষের  হাতে  তুলে দেন  রেজিনগর  বিধায়ক  রবিউল  আলম  চৌধুরী  সহ  ব্লক  নেতৃত্ব । নব  কলেবরে  সুসজ্জিত  হচ্ছে  তৃণমূল ।  সে  জন্য  আরও  বেশি  তটস্থ  তৃণমূল বিধায়করা ।  এতদিন  শুধু  দলের  শীর্ষ  নেতৃত্বেরই  নজর  থাকত,  এবার  প্রশান্ত কিশোরের  মতো  ভোটগুরুও  রয়েছেন  আড়ালে ।  সব  মিলিয়ে  নয়া  চ্যালেঞ্জের  আগে তৃণমূলের  অন্দরমহল  এখন  সরগরম । 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *