উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা

কাটমানি ফেরতের চেক বাউন্স। তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলরের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ

ইসলামপুর, উত্তর দিনাজপুর, ১৩ আগস্টঃ প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা প্রকল্পের বাড়ি পাইয়ে দেওয়ার জন্য নেওয়া কাটমানি ফেরতের চেক বাউন্স। দেখাও নেই কাউন্সিলরের। আর তাই আজ ইসলামপুর পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলর রঞ্জন মিশ্রের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখালেন বেনিফিসিয়ারিরা। ঘটনাস্থলে ইসলামপুর থানার পুলিশ পৌছে বিক্ষোভকারিদের কাটমানি ফেরতের প্রতিশ্রুতি দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে।

প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার বাড়ি পাইয়ে দেওয়ার নামে ওয়ার্ডের বেশ কিছু লোকের কাছ থেকে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ ওঠে ইসলামপুর পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলর রঞ্জন মিশ্রের বিরুদ্ধে। বাড়ি দেওয়ার নামে বেনিফিসিয়ারিদের কাছ থেকে ওই তৃণমূল কাউন্সিলর ১৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা কাটমানি নেয় বলে অভিযোগ। এরপরও বেনিফিসিয়ারিদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে বাড়ি তৈরী বাবদ কোন টাকা না ঢোকায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন বেনিফিসিয়ারিরা।

চাপে পড়ে, কাটমানি ফেরত দেওয়ার জন্য বেশ কিছু বেনিফিসিয়ারিকে চেকও দেন ওই তৃণমূল কাউন্সিলর। কিন্তু ওই চেক ব্যাঙ্কে জমা দিলে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ ওই অ্যাকাউন্টে কোন টাকা নেই বলে জানিয়ে দেয়। এতেই ক্ষুব্ধ হয়ে আজ অভিযুক্ত তৃণমূল কাউন্সিলরের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বেনিফিসিয়ারিরা। এরপর ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ইসলামপুর থানার পুলিশ। আগামী সোমবারের মধ্যে কাটমানি বাবদ নেওয়া টাকা ফেরত দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দেয় পুলিশ। পুলিশের আশ্বাস পেয়েই শান্ত হন বিক্ষোভকারীরা। তবে, আগামী সোমবারের মধ্যে তাদের টাকা ফেরত না পেলে জেলা প্রশাসনের দ্বারস্থ হওয়ার হুমকি দিয়েছেন কাটমানি ফেরতের দাবীতে বিক্ষোভরত বেনিফিসিয়ারিরা।

অন্যদিকে, তৃণমূল কংগ্রেসের ইসলামপুর টাউন সভাপতি গঙ্গেশ দে সরকার জানিয়েছেন, দলীয় নির্দেশ অনুযায়ী, তৃণমুলের কোন কাউন্সিলর কাটমানির সাথে যুক্ত থাকলে সেই কাউন্সিলরকে সেই কাটমানির টাকা ফেরত দিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *