জেলা বীরভূম

দুদিন ধরে টানা বিক্ষোভের পর বিজেপি কর্মীর মৃতদেহ পেল পরিবার, আজ হবে শেষকৃত্য

বীরভূমঃ  দুদিন ধরে টানা বিক্ষোভ, পথ অবরোধ, ঘেরাও কর্মসূচির পর অবশেষে বিজেপি কর্মীর মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দিল বোলপুর মহকুমা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ । সোমবার বিকেলে আত্মীয় পরিজনরা দেহ নিতে বোলপুর হাসপাতালে পৌছলে, শর্ত চাপায় পুলিশ । পুলিশের শর্তে ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীরা টায়ার জ্বালিয়ে-পথ অবরোধে শুরু করে দেয় ।  উত্তপ্ত হয়ে ওঠে হাসপাতাল চত্বর । এরপর শেষমেশ রাত সাড়ে ১১টায় বিজেপি কর্মী স্বরূপ গড়াইয়ের দেহ হাতে পায় পরিবার । বরফ দিয়ে রাখা হয় তাঁর মৃতদেহ । আজ সকালে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে স্থির হয় ।   

প্রসঙ্গত, নিহত বিজেপি কর্মীর দেহ ঘিরে ধুন্ধুমার কলকাতা থেকে বোলপুর । দিনভর টানাপোড়েনের পর সোমবার রাতে বাড়ি ফিরে যান স্বরূপ গড়াইয়ের পরিবার । আর তারপরই দেহ নিয়ে বোলপুর রওনা দেয় পুলিশ । এরপরই হুলুস্থুল বাঁধে গোটা ঘটনা জুড়ে । পরিবারকে না জানিয়ে কেন কলকাতায় দেহ নিয়ে গেল পুলিশ, সেই প্রশ্ন তোলেন স্থানীয় বিজেপি নেতারা  । এদিকে দিনভর দেহ রাখা ছিল বোলপুর হাসপাতালের মর্গে । কলকাতা থেকে বিকেলে বোলপুর  পৌঁছন নিহত বিজেপি কর্মীর স্ত্রী এবং দাদা । সেখানে তারা দেহ নিতে চাইলে পুলিশ জানায় এসডিপিও-র অনুমতিতেই হাসপাতালে দেহ রাখা হয় । তাই, দেহ নিতে গেলে এসডিপিও-র অনুমতি লাগবে । পরিবারের হাতে দেহ তুলে দিতে একাধিক শর্তও চাপায় পুলিশ । এতেই ফের ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিজেপি কর্মীরা । শুরু হয় অবরোধ । পুলিশের সঙ্গে বচসা বাধে অবরোধকারীদের । দফায় দফায় চলে বিক্ষোভ । টানাপোড়েন চলতে থাকে । গোটা বীরভূম জুড়ে পথ অবরোধে বসে যান দলীয় কর্মীরা । শেষমেশ পুলিশের শর্ত মেনেই দেহ নিতে রাজি হয় পরিবার । এরপর ৪৮ ঘণ্টা টালবাহানার পর শেষমেশ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টায় দেহ পৌঁছয় গ্রামে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *