জেলা মুর্শিদাবাদ

জঙ্গিদের গুলি খেয়েও মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফেরা শ্রমিকের সঙ্গে দেখা করলেন তৃণমূল সাংসদ

মুর্শিদাবাদঃ বুধবার সাগিরদিঘির বাহালনগরে জাহিরুল সরকারের সঙ্গে দেখা করলেন জঙ্গিপুরের তৃণমূল সাংসদ খলিলুর রহমান। প্রায় ঘণ্টা খানেক ধরে জাহিরুল সরকার এবং তার পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন এবং ওই পরিবারের পাশে থাকার ও সব রকম সাহায্য করার আশ্বাস দেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য সাগরদিঘির বাহাল নগরের সাতজন কাশ্মীরের কূলগাঁও জেলায় আপেল বাগানে কাজ করতে গিয়েছিলেন। ২৯ অক্টোবর ঘটনার দিন জঙ্গিরা সাতজনের মধ্যে ছয় জনকে আপেল বাগান থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে যায় এবং তাদের উপর নির্বিচারে গুলি চালায়। জঙ্গিদের গুলিতে পাঁচ জনে মৃত্যু হয়। জাহিরুল ইসলামের শরীরে চারটি গুলি লাগলেও সে বেঁচে যায়। ঘটনার পড়ে কাশ্মীর পুলিশ জাহিরুলকে উদ্ধার করে নিয়ে গিয়ে শ্রীনগর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে সুস্থ হয়ে ওঠায় দিন দুয়েক আগেই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পায় সে। সরকারী ব্যবস্থাপনায় বুধবার সকালে তিনি দমদম বিমান বন্দরে নামেন এবং তার পরে দুপুরে বাড়ি ফিরে আসেন। জাহিরুলের বাড়ি ফেরার খবর পেয়ে খলিলুর রহমান তার বাড়িতে ছুটে যান। জাহিরুল বলেন, “আমাকে মৃত মনে করে জঙ্গিরা ফেলে চলে যায়। আমার চোখের সামনে গ্রামের পাঁচজনকে গুলি করে মেরে ফেলে। আমার দেখা ছাড়া কিছু করার ছিল না।” বাড়ি ফিরে আসার পরেও জাহিরুলের চোখে মুখে আতঙ্কের ছাপ লেগেই ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *