জেলা পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান

রেলকর্মীর গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধারে চাঞ্চল্য চিত্তরঞ্জন রেল শহরে।

নীলকন্ঠ দাস, আসানসোল

শনিবার এক রেলকর্মীর গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার হল চিত্তরঞ্জন কর্নেল পার্কের সামনে। প্রায়শই এই ধরনের ঘটনা ঘটতে থাকে চিত্তরঞ্জন এলাকায়। জানা যায়, মৃত ব্যক্তির নাম আনন্দ কুমার ভাট (৪৭)। রেল শহর চিত্তরঞ্জন ফতেপুর এলাকার ৫৩ নম্বর রাস্তার ৬ -বি কোয়ার্টারের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ ওয়ার্কস কারখানার ১৬ নম্বর শপের কর্মী ছিলেন তিনি। পাশাপাশি তিনি গৃহ শিক্ষকতা করতেন। তিনি বিনামূল্যে অসহায় গরীব ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষা প্রদানের কাজ করতেন। সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকালে কর্নেল সিং পার্কের সামনে তাঁর নিজের মারুতি গাড়ির মধ্যেই আনন্দ কুমার ভাটের গুলিবিদ্ধ দেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। চালকের আসনে বসেছিলেন আনন্দ কুমার। তার শরীরের বাঁ দিকের বুকের মধ্যে ৭ টি গুলি পাওয়া গেছে। পরে স্থানীয়দের মদতে চিত্তরঞ্জন থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে নিয়ে যান। মৃত আনন্দ কুমারের ছেলে অভিষেক ভাট শনিবার সকালে চিত্তরঞ্জন থানায় খুনের মামলার লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। মৃত আনন্দ কুমারের ছেলে অভিষেকের বক্তব্য, গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ছটা নাগাদ তিনি বেড়িয়েছিলেন, তিনি ঘর থেকে ওইরকম সময়ে বেরোলে দশটা থেকে সাড়ে দশটার মধ্যে চলে আসেন। কিন্তু, শুক্রবার রাতে অনেক দেরি হওয়ায় ওনার খোঁজখবর করার পর শেষমেশ ফোন করলে ওনার ফোন সুইচ অফ বলে। এরপর ওনার ফোনের লোকেশন ট্র্যাক করলে তার লোকেশন কর্নেল সিং পার্ক দেখায়। সেই মুহূর্তে প্রতিবেশীদের সঙ্গে নিয়ে তারা আনন্দ কুমার ভাটের খোঁজে বেরিয়ে পড়েন। কিন্তু, গভির রাত হওয়ায় খোঁজাখুঁজি করে কোনরকম হদিশ না পেয়ে তারা বাড়ি ফিরে আসেন। শনিবার সকালে আনন্দ কুমার ভাটের বন্ধুরা প্রাতঃ ভ্রমনে বেড়িয়ে গাড়ির মধ্যে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তাঁর মৃতদেহ দেখতে পেয়ে খবর দেন আনন্দ কুমারের বাড়িতে।  ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে চিত্তরঞ্জন থানার পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *